জাতীয়

করোনা চিকিৎসার নামে ৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতাল

ইনভেস্টিগেশন ডেস্ক : করোনা চিকিৎসার নামে প্রতারণার মাধ্যমে ৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রাজধানী ঢাকার রিজেন্ট হাসপাতাল জানিয়েছে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম। তাছাড়া হাসপাতালটির বিরুদ্ধে করোনা নেগেটিভ ও পজেটিভ সার্টিফিকেট বিক্রির অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। টেস্ট না করেই দেয়া হতো করোনা টেস্টের রিপোর্ট।

করোনা চিকিৎসায় অনিয়মের অভিযোগে সোমবার (৬জুলাই) বিকেলে রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর ও উত্তরা শাখায় একযোগে অভিযান চালান র‌্যাব এর ভ্রাম্যমান আদালত। অভিযান শেষে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ তথ্য জানান।

‌র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট  বলেন, এখানে টেস্ট না করেই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট দেয়া হতো। স্যাম্পল নিয়ে তা ফেলে দিয়ে ভুয়া রিপোর্ট দিতো হাসপাতালের সংশ্লিষ্টরা। রিপোর্টে নকল সিল ও স্বাক্ষর দেয়া হতো। এ ঘটনা আটজনকে আটক করা হয়েছে। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যানসহ যারা এ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সবার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সরোয়ার আলম বলেন, হাসপাতালটিতে বিনা পয়সায় কোভিড-১৯ টেস্ট করানোর কথা থাকলেও প্রতিটি রোগী কাছ থেকে ৩ হাজার ৫০০ টাকা করে নেয়া হতো। এছাড়া তারা নির্ধারিত রোগীর বাইরেও নমুনা সংগ্রহ করে তাদের থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করতো। এখন পর্যন্ত তারা সরকারের কাছে প্রায় ১ কোটি টাকার মতো বিল জমা দিয়েছে।

অভিযানের সময় হাসপাতালের কোনো অনুমোদনই তারা দেখাতে পারেনি জানিয়ে তিনি আরো বলেন, এটা একটা ডায়াগনেষ্টিক ল্যাব ছিলো, যার মেয়ার ২০১৪ সালেই শেষ হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button