আন্তর্জাতিক

ব্যবসায়ীর ফ্রিজে যা মিলল!

ইনভেস্টিগেশন ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার ব্রিজবেনে এক ব্যক্তির অণ্ডকোষ হারানোর ঘটনায় তদন্ত করতে গিয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীর ফ্রিজে খুঁজে পেয়েছে আরেক ব্যক্তির পুরুষাঙ্গ ও অণ্ডকোষ। ব্রিসবেনের ইলেক্ট্রিশিয়ান রায়ান অ্যান্ড্রু কিংয়ের (২৭) বাসার ফ্রিজে পুরুষাঙ্গ ও অণ্ডকোষ পাওয়া যায়। দেশটির স্থানীয় সময় গত শনিবার এই ঘটনা ঘটে।

শনিবার রাতে পুলিশ ও প্যারামেডিকসকে একটি শহরের ব্যাকপ্যাকার হোস্টেলে ডেকে আনা হয়। সেখানে তারা দেখতে পান ২৬ বছর বসয়ী এক তরুণের যৌনাঙ্গ আংশিকভাবে কাটা। বলা হয়, ওই লোকটি সিডনির বাসিন্দা।

প্রাণী বা মানুষের অণ্ডকোষ অপসরাণ সংক্রান্ত একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তিনি সিডনি থেকে ব্রিজবেনে যান। আর ওই অনুষ্ঠানটির আয়োজন করেন রায়ান অ্যান্ড্রু কিং। ধারণা করা হচ্ছে, অনলাইন থেকে প্রাণী বা মানুষের অণ্ডকোষ অপসরাণ বিদ্যা শিখেছেন তিনি। তবে পেশায় একজন ইলেক্ট্রিশিয়ান।

হোস্টেলে ওই আহত তরুণকে পাওয়ার পর পুলিশ তাকে হাসপাতালে পাঠায়। পরে ওই ঘটনার তদন্ত শুরু করে। পুলিশ কিংসের ওয়েরস্ট অ্যান্ড অ্যাপার্টম্যান্টে তল্লাশি করে। তখন তার বাড়ির ফ্রিজে খুঁজে পায় মানুষের পুরুষাঙ্গ ও এক জোড়া অণ্ডকোষ।

কুইন্সল্যান্ড পুলিশ জানিয়েছে, বিচ্ছিন্ন পুরুষাঙ্গ ও অণ্ডকোষ পাওয়ার ব্যাপারে এখনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তবে কিংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার ব্রিজবেনের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে তাকে হাজির করা হয়। তার জামিন চাওয়া হলে তা নামঞ্জুর করা হয়। জিস্ট্রেট জুডিথ ডালে বলেছেন, মনে হচ্ছে, ওই ঘটনাগুলো ঘটেছে অন্যান্য ব্যক্তির অনুমতিতে।

তার আইনজীবী আদালতকে জানিয়েছেন, কিংকে স্কুল যৌন নিপীড়ন করা হয়। আর কিংস অ্যাস্পের্গের’স অ্যান্ড ক্লিনেফেল্টার সিনড্রোমে আক্রান্ত। এই রোগটি হলো, একজন পুরুষ অতিরিক্ত এক্স বা নারীদের ক্রোমোজোম নিয়ে জন্মগ্রহণ করে। ছোট, দুর্বলভাবে অক্ষম যৌনাঙ্গ থাকে এই রোগে আক্রান্তদের। উর্বরতাও কম থাকে।

সূত্র-নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button