আন্তর্জাতিক

চলতি মাসেই ‘নিবন্ধন পাচ্ছে’ রাশিয়ার ভ্যাকসিন

প্রকাশিত : ০২:০৯, আগস্ট ০৮,২০২০

ইনভেস্টিগেশন ডেস্ক : পৃথিবীর প্রথম ‘করোনা প্রতিরোধী’ প্রতিষেধক হিসেবে নিজ দেশের সরকারের নিবন্ধন পেতে যাচ্ছে রাশিয়ার গামেলিয়া রিসার্চ ইন্সটিটিউটের ভ্যাকসিন। দেশটির উপ-স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওলেগ গ্রিডনেভ জানিয়েছেন, চলতি মাসের ১২ তারিখেই ভ্যাকসিনটি নিবন্ধন পাবে।

উপমন্ত্রী জানান, শুরুতে স্বাস্থ্যকর্মী এবং বয়স্ক ব্যক্তিদের টিকা দেয়া হবে।

গত সপ্তাহে রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরশকো জানান, তারা অক্টোবরে জাতীয় টিকাদান কর্মসূচি শুরু করবেন। সব খরচ সরকার থেকে বহন করা হবে।

গ্রিডনেভ শুক্রবার সকালে সাংবাদিকদের বলেন, গামেলিয়া সেন্টারের তৈরি ভ্যাকসিনটির নিবন্ধন ১২ আগস্ট। এখন চূড়ান্ত ধাপ চলছে। ভ্যাকসিনটি নিরাপদ কি না, সেটি এই ধাপে আমাদের বুঝতে হবে।

জুনের ১৮ তারিখ এই ভ্যাকসিনের প্রাথমিক ধাপের ট্রায়াল শুরু হয়। ওই ধাপে অংশ নিয়েছিলেন ৩৮ জন। তাদের সবার শরীরে ভ্যাকসিনটি নিরাপদ এবং কার্যকরী প্রমাণিত হয়েছে।

কিছু কিছু দেশ ভ্যাকসিনটির সফলতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করলেও অনেক বিজ্ঞানী বলছেন, তারা আশাবাদী।

ব্রিটেনের হিউম্যান ভাইরোলজি পাঠ্যপুস্তকের সহলেখক প্রফেসর জন মধ্যপ্রাচ্যের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম দ্য ন্যাশনালকে বলেছেন, রাশিয়ার ভ্যাকসিনের খবরে আমি মুগ্ধ কিন্তু অবাক নই।

এই বিশেষজ্ঞ বলছেন, এ কথা বলছে গামেলিয়া রিসার্চ ইন্সটিটিউট। এটি বেশ বড় গবেষণা প্রতিষ্ঠান। তারা নিশ্চয়ই আন্তর্জাতিক মান অনুসরণ করবে, যাতে রাশিয়াসহ অন্য দেশে ক্রস-লাইসেন্সড পায়।

যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব রিডিংয়ের ভাইরোলজি বিভাগের আরেক প্রফেসর ইয়ান জোন্সও একই কথা বলছেন, রাশিয়ার অ্যাডিনোভাইরাস ভিত্তিক ভ্যাকসিন সুপরিচিত প্রযুক্তিতে তৈরি হচ্ছে। তার মানে এতে ঝুঁকি কম থাকবে। আমি মনে করি এটা নিরাপদ হবে। ব্যর্থ হওয়ার কারণ দেখি না।

পিএনএস/এসআইআর

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button