আন্তর্জাতিক

৮ মিনিটেই আমিরাতকে ধ্বংস করবে ইরানি ক্ষেপণাস্ত্র!

ইনভেস্টিগেশন রিপোর্ট :
17 August, 2020
প্রকাশের সময় : সকাল,11:55 am
আপডেট : সকাল,11:55 am

মধ্যপ্রাচ্যের ইহুদিবাদী দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েলের সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পথে হাঁটছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এবার সেই বিষয় প্রকাশ্যে আসার পরপরই আবুধাবিতে শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হুমকি দিয়েছে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান।

প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণে চুক্তির মাধ্যমে সংযুক্ত আরব আমিরাত ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অবশ্যই এর জন্য তাদের মাশুল দিতে হবে।

ওয়াশিংটন ডিসির এক উচ্চপদস্থ উপদেষ্টা বলেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রগুলো মাত্র আট মিনিটের মধ্যে আরব আমিরাতে আঘাত হানতে পারে। তিনি আরও জানান, সম্প্রতি ইরানি নৌবাহিনীর মহড়াগুলোতে এমন একটি মিসাইল দেখা গেছে যা ভূগর্ভস্থ লঞ্চার থেকে এসেছে। এটি নতুন ছিল এবং সতর্কবার্তা দিচ্ছে। এরপরও দুবাই ও অন্যান্য শহরগুলো এখনো নিরাপদ অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত হয়।

বিশ্লেষকদের মতে, ইরান ইতোমধ্যে ইরাক ও ইয়েমেনে তার ছায়া বাহিনীর মাধ্যমে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো সৌদি আরবের সাধারণ নাগরিকদের টার্গেট করেছে। নতুন হুমকি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা উচিত বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। মূলত আঞ্চলিক শক্তি ইরানের বিরুদ্ধে সমর্থন বাড়াতেই এমন উদ্যোগ বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের।

এরপর টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে ওই অঞ্চলে শক্ত অবস্থান নিয়ে ইসরায়েলকে চেপে বসতে সুযোগ দেওয়ার বিরুদ্ধে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে সতর্ক করেন রুহানি। তিনি বলেন, আমিরাতের সতর্ক হওয়া উচিৎ। তারা ইতোমধ্যে বিশাল ভুল করেছে। বিশ্বাসঘাতকতাপূর্ণ কাজ করেছে। আমার প্রত্যাশা, তারা বুঝতে পারবেন এবং ভুল পথ ছাড়বে।

রুহানি আরও বলেন, আগামী নভেম্বরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের আরেক দফা বিজয় নিশ্চিত করতে এই চুক্তি করা হয়েছে। যে কারণে ওয়াশিংটন থেকে এই চুক্তির কথা ঘোষণা করা হয়।

“সুত্র পিএনএস/এএ”

“ইনভেস্টিগেশন নিউজ বিডি”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button