জাতীয়

নব্য জেএমবির ২ সদস্য গ্রেফতার, টার্গেট ছিল রাজনীতিবিদ ও নাস্তিক হত্যা

ইনভেস্টিগেশন রিপোর্ট :
18 August, 2020
প্রকাশের সময় : বিকাল,05:36 pm
প্রকাশের সময় : বিকাল,05:37 pm

রাজধানীর কোতয়ালী থানাধীন সদরঘাট এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির সামরিক শাখার দুই স্লিপার সেল সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। গ্রেফতারকৃতরা হলেন সাফফাত ইসলাম ওরফে আব্দুল্লাহ ওরফে উইলিয়াম ওরফে আল আরসালান ওরফে মেহেমেদ চাগরি বেগ (১৮) ও ইয়াছির আরাফাত ওরফে শান্ত (২০)।

গতকাল সোমবার (১৭ জুলাই) সন্ধ্যায় সদরঘাট এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে দু’টি মোবাইল ফোন, একটি নান চাকু এবং তাদের হাতে লিখিত জঙ্গি তৎপরতার নির্দেশনা, কর্ম পরিকল্পনা সম্বলিত ডকুমেন্ট উদ্ধার করা হয়েছে। তারা দুজনেই বাড়ি থেকে কথিত হিজরতের নামে বেরিয়েছিল। আজ মঙ্গলবার সিটিটিসি’র উপ-কমিশনার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিটিটিসি সূত্রে জানা যায়, গ্রেফতারকৃতরা নব্য জেএমবি’র সামরিক শাখার সদস্য। তারা একটি নতুন গ্রুপে ৭/৮ জন সদস্য একত্রিত হয়ে একটি স্লিপার সেল গঠন করে যার নাম দেয় ‘এফজেড ফোর্স’। এই উদ্দেশ্যে গত ৪ জুলাই সাফফাত ইসলাম ঢাকার এলিফ্যান্ট রোডের নিজ বাসা থেকে এবং ইয়াছির আরাফাত কেরানীগঞ্জের নিজ বাসা থেকে কথিত হিজরত করে সামরিক প্রশিক্ষণ এবং সদস্য সংগ্রহের চেষ্টা করে আসছিলেন।

তাদের প্রাথমিক টার্গেট ছিল প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ এবং নাস্তিক সম্পদশালীদের হত্যা করা। এ উদ্দেশে তারা অস্ত্র সংগ্রহ এবং বোমা প্রস্তুত করার মাধ্যমে নিজেদের সক্ষমতা অর্জনের প্রচেষ্টায় লিপ্ত ছিলেন। এছাড়াও তারা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও অন্যান্য অনলাইন নেটওয়ার্কিং অ্যাপস ব্যবহারের মাধ্যমে একে অপরের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করেন। সংগঠনের কার্যক্রমকে জোরদার করার লক্ষ্যে সদস্য সংগ্রহ ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড সংগঠনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেন।

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে সোমবার রাতেই সন্ত্রাস বিরোধী আইনে কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা (নং-১৩) হয়েছে। সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলার পর গ্রেফতারকৃতদের মঙ্গলবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

“সুত্র পিএনএস/জে এ”

“ইনভেস্টিগেশন নিউজ বিডি”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button