জাতীয়

রাষ্ট্রের প্রয়োজনেই সংবাদপত্র শিল্পকে রক্ষা করতে হবে: আ স ম রব

“ইনভেস্টিগেশন রিপোর্ট :
August : 22:2020
প্রকাশের সময় : রাত : 11:02 pm
আপডেট : রাত : 11:05 pm

স্বাধীনতার পতাকা উত্তোলক ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেছেন, সংবাদপত্র শিল্প এখন অস্তিত্ব রক্ষার সংকটে। এ শিল্পকে রাষ্ট্রের প্রয়োজনেই রক্ষা করতে হবে। শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।

আ স ম রব বলেন, আধুনিক রাষ্ট্র, সমাজ, সংস্কৃতি ও গণতন্ত্র বিকাশে সংবাদপত্র শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। ভবিষ্যতে সংবাদপত্র শিল্পকে গণমানুষের স্বার্থ রক্ষায় আরো দক্ষ ও কার্যকর প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। কোভিড ১৯ মহামারীর কারণে সাংবাদিকতার ইতিহাসে বৃহত্তম অস্তিত্ব সংকট সৃষ্টি হয়েছে। বাংলাদেশ সংবাদপত্র শিল্প দারুণ সঙ্কটে নিপতিত। ইতি মধ্যেই সারাদেশে ২৫৪টি সংবাদপত্রের প্রকাশনা বন্ধ হয়ে গেছে। পত্রিকা গুলোর বিজ্ঞাপন শূন্যের কোঠায় নেমেছে ফলে প্রচুর আর্থিক লোকসান গুণতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, শ্রম আইন অনুসারে সংবাদপত্রকে সেবা শিল্প ঘোষণা করা হয়েছে। সংবাদপত্র শিল্প যেহেতু রুগ্ন শিল্পে পরিণত হয়েছে সেহেতু সরকারের সার্বিক সহযোগিতা ছাড়া এই শিল্পের টিকে থাকা কঠিন হয়ে পড়বে। করোনা সঙ্কটে অন্যান্য খাত সরকারের প্রণোদনা ও বড় রকমের সহায়তা পাচ্ছে, কিন্তু সংবাদপত্র তথা গণমাধ্যম সরকারের সকল ধরনের প্রণোদনার বাইরে রয়ে গেছে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, সংবাদপত্রের এই সংকটে নিউজ পেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (নোয়াব) সরকারের কাছে সংবাদকর্মীদের বেতন-ভাতা, এই শিল্পের ব্যয়ভার তথা সামগ্রিক ভাবে সংবাদপত্র শিল্প রক্ষার জন্য সহজ শর্তে ঋণ ও প্রণোদনা প্রদান জরুরি প্রয়োজন বলে আবেদন করেছে। আমরা মনে করছি সরকার তাদের ন্যায় সঙ্গত দাবি মেনে নিয়ে সংবাদপত্র শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখার যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করবে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাঙালির স্বাধীকার, স্বাধীনতা আন্দোলন ও বাঙালির মনন গঠনে সংবাদপত্র শিল্পের বিরাট অবদান রয়েছে।

আ স ম রব বলেন, বর্তমানে অদৃশ্য চাপের কারণে সংবাদপত্র যথাযথ ভূমিকা রাখতে না পারলেও সংবাদপত্রের অপরিহার্যতা আরো তীব্রতর হয়েছে। আইনের শাসন গণতন্ত্র ও নৈতিক মানবিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে সংবাদপত্রের ভূমিকা অনিবার্য।

“ইনভেস্টিগেশন নিউজ বিডি”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button