বিশেষ প্রতিবেদন

বাজে মন্তব্যকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করবেন সেই বাইকার বধূ ফারহানা

ইনভেস্টিগেশন রিপোর্ট :
শুক্রবার ,২৮ আগস্ট ২০২০
১৩ ভাদ্র ১৪২৭,০৮ মুহাররম
১৪৪২ হিজরী,০১:১২ এএম
অনলাইন সংস্করণ

গায়ে হলুদের দিন শহরময় মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করে ‘ভাইরাল’ যশোরের মেয়ে ফারহানা আফরোজ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হেনস্তার শিকার হচ্ছেন জানিয়ে তিনি বলেছেন, বাজে মন্তব্যকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ফারহানার শখ ছিল নিজের বিয়ের অনুষ্ঠানে বাইক চালিয়ে যাওয়া। সেই শখ পূরণ করতে নিজের হলুদের অনুষ্ঠানে বাইকে করে যশোর শহরে ঘুরে যান নিজের হলুদের অনুষ্ঠান স্থলে। এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপলোড হওয়ার পর রীতিমত ভাইরাল। ভিডিওটি ফেসবুক নিউজফিডে এবং বিভিন্ন গ্রুপে সমালোচনার শিকার। অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী করেছেন নানা ধরণের কুরুচিকর মন্তব্য। এবং সেই সাথে তাকে নিয়ে অনেকেই ছড়াচ্ছে মনগড়া বানোয়াট কথা।

ফারহানা আফরোজ বলেন, আমি যদি আমার হলুদের অনুষ্ঠানে বন্ধুদের নিয়ে বাইক চালিয়ে যাই। এতে আমি কোনো দোষের কিছু দেখি না। এটা আমি শুধু মাত্র আমার জন্য করেছি, আমার পছন্দের একটি কাজ। আমি কাউকে বলিনি আমার ছবি বা ভিডিও ভাইরাল কর।

ফারহানা আরো বলেন, হলুদের অনুষ্ঠানের সিনেমাটোগ্রাফির জন্য বাইকের ভিডিওটা করা। তবে সেটা যে এভাবে ভাইরাল হবে এবং ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ব্যক্তিগত আক্রমণ করবেন তা বুঝতে পারিনি।

অশ্লীল মন্তব্যকারীদের বিরুদ্ধে সাইবার আইনে মামলা করবো আমি। আমার লাইফকে আমার মনমতো চালাতে দিন, আপনাদের লাইফকে আপনারা আপনাদের মতকরে চালান। আমার স্বপ্ন ছিল আমি বাইক নিয়ে হলুদের অনুষ্ঠান করবো, তা আমি পূরণ করেছি। এর বাইরে আমার আর কিছু বলার নেই।

ফারহানার আশা কেউ সাইবার বুলিং এর শিকার হলে যেন মুখ বুজে কেউ সহ্য না করে, প্রতিবাদ করার আহ্বান জানিয়েছেন সবাইকে।

জানা গেছে, ফারহানা আফরোজের বিয়ে হয়েছিল আরো তিন বছর আগে। রয়েছে দেড়মাস বয়সী একটি ছেলে সন্তানও। বিয়ের অনুষ্ঠান জাঁকজমকপূর্ণ করতে না পারায় ছেলে জন্মের পর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আর সে অনুষ্ঠানকে ঘিরেই শখ পূরণ করেন তিনি।

সুত্র- পিএনএস/এএ

“ইনভেস্টিগেশন নিউজ বিডি”

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button